কিভাবে টপ র‍্যাঙ্ক পাবেন? চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র | How to get top rank? Compound annual growth rate formula - freedomstoday.com | Reliable bangla portal for Network marketing or MLM learning

Latest

Monday, August 19, 2019

কিভাবে টপ র‍্যাঙ্ক পাবেন? চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র | How to get top rank? Compound annual growth rate formula



কিভাবে টপ র‍্যাঙ্ক পাবেন? চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র | How to get top rank? Compound annual growth rate formula


আবার সেই ফর্মুলা দিয়েই শুরু করা যাক। “Best investment of your cash any time crash, but best investment in your brain any time gain”। দারুন ফর্মুলা, যদি বুঝতে পারেন তো জীবনে মজা পেয়ে যাবেন। Best investment of your cash any time crash, দুনিয়ায় বড় থেকে বড় ক্যাশ বিনিয়োগ ক্রাশ (cash Investment crash) করে যেতে পারে, কিন্তু দুনীয়ায় বড় বিনিয়োগ যদি আপনি আপানার মস্তিষ্ক এর উপর করেন, মুনাফা তো বহুত বড় হবে। দুনীয়ায় বড় থেকে বড় আরবপতি লোক শুধু টাকা বিনিয়োগ করে আরবপতি হয় নি, তারা মস্তিষ্কের উপর বিনিয়োগ করে আরবপতি হয়েছেন। কি ভাবে?

চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র | compound annual growth rate formula


compound annual growth rate of india, চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র, চক্রবৃদ্ধি মুনাফার সূত্র কি
Compound annual growth rate formula
এই বিষয়টিকে বোঝার জন্য আমার এটিকে দুটি ভাগে বিভক্ত করেছি। (১) চক্রবৃদ্ধি হারে মুদ্রাস্ফীতি (compounding Inflation) এবং (২) চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি (compounding growth)

চক্রবৃদ্ধি হারে মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে আমরা আগের অনুচ্ছেদে আলোচনা করেছি, যে কি ভাবে এক অদৃশ্য রাক্ষস আমদের সব জমানো পয়সা খেয়ে নিচ্ছে। এর থেকে বাঁচার উপায়? চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি। আমাদের এই চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি কেন দরকার?



চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি (compounding growth) কেন দরকার?


যদি আমরা কোনো একটি বড় কোম্পানীর সাংগঠনিক চার্ট (organizational chart) অনুসরণ করি, তো দেখা যাবে - একটি বড় কম্পানীতে সব থেকে বেশী মাত্রায় দেখা যায় সুপারভাইজার (Supervisor)। সুপারভাইজার থেকে একটু কম মাত্রায় থাকে অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (Asst. Manager)। তার উপরে আরেকটু কম মাত্রায় থাকে ডেপুটি ম্যানেজার (Deputy manager) এবং ম্যানেজার, তার উপরে থাকে সিনিয়র ম্যানেজার (Sr. manager) এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (Asst. general manager) খুবই সীমিত। তার উপরে ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (Deputy General Manager) এবং জেনারেল ম্যানেজার। তার উপরে ভাইস প্রেসিডেন্ট (VP)। তার উপরে থাকে ১০ জন আলাদা আলাদা কার্যনির্বাহী পরিচালক (functional director) এবং সবার উপরে থাকে একজন চেয়ারম্যান (chairman)।

কোম্পানীর নীতি অনুসারে প্রতি তিন বা চার বছরে সুপারভাইজার, অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার, ডেপুটি ম্যানেজার এবং ম্যানেজার, এদের এক ধাপ পদোন্নতি হবে এবং উপর দিকে যাবে। আবার এক এক ধাপ পদোন্নতি হবে এবং উপর দিকে যাবে। এই হিসাবে দেখা গেলে এই কোম্পানীতে যদি অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার এর পদে ৩০০০ কর্মচারী থাকে, তো সবার এক ধাপ পদোন্নতি হতে হতে উপর দিকে যাওয়া উচিত। কিন্তু এমন ঘটনা কি ঘটে? মন দিয়ে দেখুন, যদি সবাই পদোন্নতি পেতো, আর সবাই যদি উপরের দিকে যেত, তো সেই কপম্পানীতে ৩০০০ চেয়ারম্যান অথবা ৩০০০ পরিচালক (Director) হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু এমন ঘটনা ঘটে না। কারন, এই নীচের অংশের কর্মচারী দের প্রথম প্রথম প্রতি তিন বা চার বছরে পদোন্নতি হয়, কিন্তু তার পর পদোন্নতি হয় ধীরে ধীরে। প্রকৃতপক্ষে এটাকে আমরা বলি ধাপে ধাপে পদোন্নতি (turn by turn promotion) এই ধাপে ধাপে পদোন্নতি প্রথম প্রথম তো ঠিকই চলে, কিন্তু পরে ধীরে ধীরে টার্ন turn হওয়া বন্ধ হয়ে যায়।


ইন্ডিয়ান আর্মি র‍্যাঙ্ক চার্ট ‌(Indian Army rank chart)


এবার যদি আমরা ইন্ডিয়ান আর্মি র‍্যাঙ্ক চার্ট অনুসরণ করি, তো দেখা যাবে - ইন্ডিয়ান আর্মিতেও একই ঘটনা ঘটে। লিউটেনান্ট (lieutenant) যুক্ত হবার পর সবাই যদি পদোন্নতি পেয়ে উপরের দিকে যেত, তাহলে আর্মিতে এবং সারা দেশের যে জেনারেল (general) হয়, সেটা ১০০০ হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু সেটা একজনই হয়। আসলে এই চার্টটা পিরামিড এর মত দেখতে হয় এবং উপরে যেতে যেতে সরু (slim) হয়ে যায়। এর কারন কি? কারন চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি। যদি আপনার চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি না হয় তো আপনি এই পিরামিড এর নীচের অংশে থেকে যাবেন। আর এই নীচের অংশে আপনার বেতনের উন্নতি হয় ১০% to ১২%, এর বেশী নয়। সুতরাং যার বেতন মাত্র ১০% to ১২% উন্নতি হয়, তার তো বেতন সব মুদ্রাস্ফীতি (inflation) খেয়ে নেয়, তো তার উন্নতি হবে কি করে?

মন দিয়ে বঝুন, আপনি যদি আউট অফ টার্ন প্রমোশন (out of turn promotion) নিয়ে উপরে না যেতে পারেন, তো আপনি এই নিচের অংশে থেকে যাবেন। আজ আমাদের ভারতবর্ষে ৯৫% মানুষ এই নীচের অংশেই থেকে গেছে। তাদের সফলতা আসে নি। কেন বড়লোক আরো বড় হচ্ছে, আর গরিব আরো গরিব হচ্ছে। কারন আপনাকে মুদ্রাস্ফীতি খেয়ে নিচ্ছে অথবা মেরে ফেলছে। যদি আপনি চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি করে উপরের দিকে চলে যেতে পারেন, দুই থেকে তিনটে লম্বা লাফ মারতে পারেন তো আপনি সফল হবেন। আজ যত মানুষ উপরের দিকে গেছে, তারা কেউ টার্ন বাই টার্ন প্রমোশন নিয়ে উপরের দিকে যায় নি। তারা আউট অফ টার্ন প্রমোশন নিয়ে উপরের দিকে গেছেন বা হঠাৎ লাফ মেরে উপরের দিকে গেছেন। কারন তারা তাদের উন্নতি এর উপর বিনিয়োগ করেছেন।

জগমোহন ডালমিয়া, গৌতম সিংঘানিয়া, আনন্দ বর্মন, নোভিন জিন্দাল, ব্রীজমোহন লাল মুঞ্জাল, বি কে গোয়েঙ্কা, রাজ বাহাদুর মোদি, লক্ষ্মী মিত্তাল, রতন টাটা, আদিত্য বিড়লা, মুকেশ আম্বানী, ভারতে যত বড় বড় আরবপতি লোক আছে এরা কখোনোই বাজারে বিনিয়োগ করে উন্নতি করেন নি। এরা নিজের ব্যবসা, আর নিজের মস্তিষ্কের উপর বিনিয়োগ করে উন্নতি করেছেন।

মস্তিষ্ক আপনাকে অনেক বড় মুনাফা দেবে, ক্যাশ তো অনেকবার ক্রেশ করে যেতে পারে। এই যে যত নীচের দিকে কর্মচারী আছে তাদের উন্নতি না হওয়ার একটাই কারন, তারা ক্যাশ বিনিয়োগ করে। বীমাপত্র (Insurance policy) করে, ইকুইটিতে (Equity) পয়সা লাগায়, সম্পত্তিতে পয়সা লাগায়, সোনা কেনে, এই ভাবে কত উন্নতি করবে? করতে পারে না। কিন্তু এই যে উপরের অংশের লোকেরা, এরা নিজের উপর বিনিয়োগ করে এবং সব আউট অফ টার্ন প্রমোশন করে যখন উপরের দিকে যায়, তখন তাদের ব্র্যান্ড পরিবর্তন (Brand change) হয়ে যায়। ব্র্যান্ড পরিবর্তন হলেই বড় বেতন কাঠামো হয় এবং এত বেতন বেড়ে যায় যে উন্নতি হতে বাধ্য। কারন উপাধির (Designation) এর সাথে যখন ব্র্যান্ড পরিবর্তন হয় তখন বড় বেতন কাঠামো তৈরী হয়। কিন্তু দেখা যায় নীচের অংশের লোকেরা নীজের উন্নতি এবং মস্তিষ্কএর উপর বিনিয়োগ করে না। কেন করে না? কারন তাদের মানসিক প্যাটার্ন (mental pattern) খারাপ হয়ে গেছে।

কিছু সরকারি কর্মচারি আছে, তারা বলছে “হরে কৃষ্ণ হরে রাম”, পুরো বেতন জিরো কাম”। কেন বলছেন? কারন তাদের মানসিক প্যাটার্ন খারাপ হয়ে গেছে। নীজের উন্নতি হচ্ছে না, ফলে এরা উপরের দিকে যেতে পারছে না এবং নীচের দিকেই থেকে যাচ্ছে। যেখানে কিনা মাত্র ১০% থেকে ১২% বেতনের উন্নতি (salary growth) হয়, এবং এর প্রায় পুরোটাই মুদ্রাস্ফীতি খেয়ে নিচ্ছে, তো বাঁচল কি? কিছুই না।

যদি আপনি মনে করেন আপনি ভাল বিনিয়োগ করেছেন, যেখানে আপনাকে ১৫% রিটার্ন দিচ্ছে। কিন্তু মনে রাখবেন তার উপর আপনার কর (tax) দিতে হবে। ৩০% কর আপনার ১৫% রিটার্ন এর উপর ৪.৫% খেয়ে নেবে। বাঁচল কত? ১০.৫%। আর ১০.৫% এর উপর যদি ৮.৫% থেকে ৯% মুদ্রাস্ফীতি হয়, তাহলে আপনার আসল রিটার্ন কত? ১.৫% থেকে ২%, মানে আপনার কিছুই থাকলো না। আপনার মনে হচ্ছে আপনি পেলেন, কিন্তু যেটা পেলেন সেটা হল আপনার বার্ষিক রিটার্ন (annual return)। যেটা নামমাত্র রিটার্ন (nominal return) এর অনেক কম।

কেউ কেউ বলতে পারেন না না এরকম নয়, শুধু পয়সা বিনিয়োগ করেও অনেকে বড় হয়েছেন। ওয়ারেন বাফেট (Warren Buffett) কি করেছেন? পৃথিবীতে সব থেকে শক্তিশালী বিনিয়োগকারী, যিনি পয়সা বিনিয়োগকরে করে উন্নতি করেছেন। কি ভাবে? উনার দুটি নিয়ম (rule) আছে। Rule no. 1 - কখনও আপনার অর্থ আলগা করবেন না (Never loose your money) এবং rule no. 2 - সবসময় মনে রাখবেন (Always remember) rule no. 1। কিন্তু ওয়ারেন বাফেট তার রুল গুলি বজায় রাখল কি ভাবে? আর কেনোই বা তার পয়সা আলগা হয় নি? কারন দেখা গেছে তার বই পড়ার অভ্যাস। উনি সফলই হয়েছেন বই পড়ে পড়ে। এছারাও আরো দেখা যায় – যেমন বিল গেটস (Bill Gates)। উনি গড়ে এক সপ্তাহে একটি বই পড়ে ফেলেন। মার্ক জুকারবার্গ (Mark Zuckerberg) উনি প্রতি দুই সপ্তাহে একটি বই পড়ে ফেলেন। এলন মুস্ক (Elon musk) বলছেন আমি সফলই হয়ছি বই পড়ে পড়ে।

তো এই চার্টের মধ্যে যা দেখলাম তাতে টার্ন বাই টার্ন থেকে আউট অফ টার্ন-ই হল সফলতার মন্ত্র। নীচের অংশের লোকেরা টার্ন বাই টার্ন চলে, ফলে এদের আসল পালা (actual turn) কখনোই আসে না। আর এরা আউট অফ টার্ন করে যায়, এরা বহুত তেজ, এরা দ্রুত মুভার (fast mover), এরা নীজের উপর বিনিয়োগ করেছেন। সুতরাং ক্যাশ বিনিয়োগ কখনো লাভ হতেও পারে, কখনো নাও হতে পারে। উইন্ডফল গেইন (windfall gain) কখনোই আপনার রুল হতে পারে না। 



উইন্ডফল গেইন (windfall gain) আপনার রুল না হবার কারন


ক্যাশ বিনিয়োগ – বাজারের উপর নির্ভর করে। আপনি যদি ক্যাশ বিনিয়োগ করেন তো আপনার চক্রবৃদ্ধির বার্ষিক বৃদ্ধির হার বাজার (compound annual growth rate) এর উপর নির্ভর করবে। আর যদি আপনি মস্তিষ্কের উপর বিনিয়োগ করেন, তো আপনার চক্রবৃদ্ধির বার্ষিক বৃদ্ধির হার আপনার পছন্দের উপর নির্ভর করবে। আপনি যতটা চান, ততটা উন্নতি করে যাবেন। কিন্তু ক্যাশ এর ব্যাপারে আপনি যতটা চাইছেন ততটা উন্নতি করতে পারবেন না, কারন আপনাকে বাজারের উপর নির্ভর করে থাকতে হবে।

দেখা যায় পৃথিবীতে যত বর বড় আরবপতি লোগ আছে তারা ব্যাংকে পয়সা বিনিয়োগ করে উন্নতি করেন নি, তারা ব্যাংক থেকে পয়সা নিয়ে নিয়ে উন্নতি করেছেন। তারা ব্যাংক থেকে পয়সা নিয়েছেন আর নীজের ব্যবসা ও নীজের মস্তিষ্কের উপর বিনিয়োগ করেছেন। তারা ব্যাংকে গিয়ে ফিক্সড ডিপোজিট (FD) করেন নি। ফিক্সড ডিপোজিট করলে আপনি নীচের দিকে যাবেন, উপরে আপনি কখনোই যেতে পারবেন না।

বিল গেটস বলছেন “If you were born poor it’s not your fault, but if you die poor it’s your mistake”। আপনি যদি গরিব হয়ে জন্মান সেটা আপনার ভুল নয়, কিন্তু আপনি যদি গরিব হয়ে মরে যান, তাহলে আবশ্যই ভুল আপনার। কেন ভুল? কারন আপনি সারাজীবন আপনার নীজের উপর বিনিয়োগ করেন নি। আপনি নিজেকে সময় দেন নি। আপনি আরামদায়ক পরিস্থিতিতে (Comfortable Situation) চলে গেছেন।

আপনার কাছে টিভি দেখাটা জরুরি ছিল। ছুটির দিনে দুপুরে ঘুমানোটা জরুরি ছিল। ফেসবুক করাটা জরুরি ছিল। হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট করা জরুরি ছিল। সিনেমা দেখাটা আপনার কাছে জরুরি ছিল। কিন্তু নিজেকে উন্নতি করা বা নীজেকে সময় দেওয়াটা আপনি জরুরি মনে করেন নি। মুদ্রাস্ফীতি খতম করে দিন। নীজের উন্নতি এর উপর বিনিয়োগ করতে শিখুন। নীজের মস্তিষ্কের উপর বিনিয়োগ করতে শিখুন। যদি একবার শিখে যান, সফলতা অবশ্যই আসবে।

আপনি কি চান এমন একটি দুর্দান্ত সুযোগ? যেখানে আপনি খুব অল্প বিনিয়োগ করে আউট অফ টার্ন করে ধীরে ধীরে নিজেকে চক্রবৃদ্ধি হারে উন্নতি দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে। 

সুতরাং খুব শীঘ্রই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। একবার বিশ্বাস করে হাতটা বাড়ান, উপরে তুলে নেওয়ার দায়িত্ব আমদের। আপনার মন্তব্য আপনি নীচে কমেন্ট বক্সে লিখেও জানাতে পারেন। একবার বিশ্বাস করে হাতটা বাড়ান, উপরে তুলে নেওয়ার দায়িত্ব আমদের।

আপনার চিন্তাভাবনার পরিবর্তন করুন, আপনার জীবন পরিবর্তন করুন।

চক্রবৃদ্ধি হারে মুদ্রাস্ফীতি | Compounding inflation | চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ | current inflation rate in India

আপনারা যদি আমাদের কাছে আরো কিছু জানতে চান, তো আমাদের website-এ একটি form দেওয়া আছে। দয়াকরে from-টি পূর্ন করুন। সেখানে আপানদের জন্য আছে একটি বিস্ময়কর ভিডিও। ভিডিওটি অবশ্যই দেখুন। আমাদের কাছে আপনার যাবতীয় প্রশ্নের অনেক উত্তর দেওয়া আছে এই ভিডিওটিতে।

যদি আর কোন সাহায্যের দরকার হয় তো অবশ্যই ফোন করুন - Contact Us

Email: freedomstoday1@gmail.com


বিশেষ দ্রষ্টব্য:
আপনি যদি ‘ইতিবাচক গল্প’ দেখতে এবং পড়তে ভালবাসেন, আপনি visit করতে পারেন আমাদের Positive stories bangla নামে YouTube channel এবং গল্প গুলি পড়ার জন্য রয়েছে একটি Blog website

Positive stories bangla Blog Website : Positive stories bangla Blog Website : https://positivestoriesbangla.blogspot.com/

Positive stories bangla YouTube channel : https://www.youtube.com/Positivestoriesbangla

No comments:

Post a Comment