৯০ দিন থেকে ৯ মাস, সফলতার সূত্র | 90 days to 9 months success formula - freedomstoday.com | Reliable bangla portal for Network marketing or MLM learning

Latest

Monday, August 19, 2019

৯০ দিন থেকে ৯ মাস, সফলতার সূত্র | 90 days to 9 months success formula



৯০ দিন থেকে ৯ মাস, সফলতার সূত্র | 90 days to 9 months success formula


প্রথমেই আপনাকে একটা প্রশ্ন করি? আপনি কি আপনার জীবনে সারা বছর সফল ভাবে থাকতে চান। আপনার উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তো এই লেখাটা শেষ অব্ধি পড়ুন। আজ আমি এমন একটি ফর্মুলা নিয়ে আলোচনা করবো যা ইমপ্লিমেন্টেশন করলে আপনার জীবনে সফল হওয়ার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হতে পারে।



নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এ সফল হওয়ার উপায় | network marketing success tips



network marketing, network marketing success tips, success formula
Ninety days success formula
এক বছর মানে ১২ মাস। এই ১২ মাসের প্রথম ৯০ দিন বা তিন মাস আপনার পরের ৯ মাসকে বহুত ইনফ্লুয়েন্স করতে পারে। আপনি যদি পরের ৯ মাসে ভাল ফল চান তাহলে আপনার প্রথম তিন মাস আপনার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ন। মানে আপনি পরের ৯ মাসে কি ভাবে ভাল ফল পাবেন তা স্থির করবে এখন ৯০ দিন আপনি কতটা ভাল ফল পেয়েছেন অথবা কি ভাবে আপনি তৈরী হয়েছেন। যে সব মানুষেরা প্রত্যেক বছর বছর ধরে পদোন্নতি বৃদ্ধি বা বেতনে বৃদ্ধি আনতে পারে না তার একটা মূল কারন, তাদের প্রথম ৯০ দিন ভাল ফল হয় নি, সুতরাং পরের ৯ মাস খারাপ হতে বাধ্য। তো উপায় –

মানসিকতা ও দক্ষতাকে একসাথে উন্নতি করা


মাইন্ডসেট এবং স্কিলসেট মানে মানসিকতা ও দক্ষতাকে একসাথে উন্নতি করতে হবে। প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে আপনার মানসিকতাকে ঠিক করতে হবে যে কি ধরেনের দক্ষতার প্রয়োজন, যদি মানসিকতার বিকাশ ঠিক হয় তো খুব তারাতারি আপনার দক্ষতার বিকাশও হয়ে যাবে। কিন্তু দেখা যায় প্রথম ৯০ দিনের মধ্য মস্তিস্কের মধ্যে যে পরিবর্তন করা উচিত সেটা অনেকেই করে উঠতে পারে না। আর যারা প্রথম ৯০ দিনের মধ্য মস্তিস্কের এই পরিবর্তন আনতে পারে তারা পরের ৯ মাসের দক্ষতা গুলিকেও খুব তারাতারি অর্জন করতে পারে। কিন্তু ঘটনাচক্রে আমাদের শুরুতে ফলাফল কম আসে। আর আমাদের মানসিকতায় এই ফলাফল কম আসাটাকে সহজে স্বীকার করতে চায় না। এর ফলে সে ঠিক মত তৈরী হতে পারে না।

প্রথম ৩ মাসের মধ্যে আপনার মানসিকতার স্বায়িত্ব পরের ৯ মাসের দক্ষতা অর্জনের ক্ষমতেকে বাডিয়ে দেবে। তো প্রথম ৩ মাস আপনার রুট যতটা ভাল বিকাশ হবে, পরের ৯ মাসে আপনি ঠিক ততটাই ভাল ফ্রুট পাবেন। সুতরাং শুরুতেই আপনাকে দ্রততম হতে হবে। আপনার কাজের গতি বাড়াতে হবে। মনকে প্রস্তুত করতে হবে। এখন যদি মনকে প্রস্তুত করতে না পারেন, পরে ইঞ্জেকশন দিয়ে অথবা ক্যামিকেল দিয়ে ফ্রুটকে মেরামত করতে হবে, কিন্তু তখন মেরামত ঠিকঠাক হয় না। আর এই ঘটনাতেই আজ সব খারাপ, ক্যামিক্যাল দেওয়া ফ্রুট পাওয়া যাচ্ছে। কারন সেই একটাই, প্রথম ৯০ দিন তার রুট ঠিকঠাক তৈরী হয় নি, ফলে পরের ৯ মাস যত ফ্রুট হচ্ছে তা খারাপ হচ্ছে। আপনি যদি ভাল ফ্রুট পেতে চান তো আগের ৯০ দিনের রুটগুলিকে ঠিক করুন।

আপনি কি জানেন কেন আপনি নিজেকে পরিবর্তন করতে পারেন না। তার একটাই কারন শুরুতে ফলাফল কম আসে, শুরুতে ফলাফল আমাদের চোখে পড়ে না। কয়েকটা উদাহরন দিই-


শুরুতে ফলাফল কম আসার কারন এবং তার ফলাফল


যে ব্যক্তি লাগাতার সিগারেট খায়, যদি প্রথম সিগারেটটি খাওয়ার পরই তার রক্তবমি হত তবে সে সিগারেট আর খেতো না। প্রথম সিগারেটটি খাওয়ার পরই যদি তার টিউবারকুলোসিস (Tuberculosis) বা ক্যান্সার (Cancer) হয়ে যায় তবে সে আর কোনদিনই সিগারেট খাবে না। সিগারেট খেলে খুব তারাতারি টিউবারকুলোসিস (Tuberculosis), ক্যান্সার (Cancer) আরো অনেক ধরণের রোগ আমাদের হবে আমরা জানি, তবুও আমরা সিগারেট খাই, কেন? কারন শুরুতে ফলাফল কম আসে।

নিউ দিল্লি থেকে নিউইয়র্ক যাওয়ার ফ্লাইট যদি শুরুতেই এক ডিগ্রী সরে যায় তো হতে পারে কম্পাউন্ড ইফেক্ট (Compound effect) এর কারনে এক লক্ষ কিমি. দূরে গিয়ে পৌঁছবে। শুরুতে এক ডিগ্রী আমার কখনোই বুঝতে পারবো না। কারন শুরুতে ফলাফল কম আসে। কিন্তু পরে সেটা ভয়াবয় আকার ধারন করে।

শুরুতে মদ খাওয়া ব্যক্তিরা খুব আনন্দ পায়, কারন কোনো ঘটনাই ঘটে না। সেটা লাগাতার চলতে থাকে এবং পরে সেটা বড় বড় রোগ ধারন করে। শুরুতে যদি আপনি ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ (Physical Exercise) না করেন পরে সেটা বড় ফলাফল নিয়ে আসবে। শুরুতে আপনি যদি রোজ এক্সট্রা কেক খান বা চকলেট খান তো বুঝতে পারবেন না, পরে রেজাল্ট ভায়ানক হবে। শুরুতেই আপনি যদি কারও সাথে ভালবাসার কথা না বলতে পারেন বা এক্সট্রা এফোর্ট না দিতে পারেন তো পরে সম্পর্ক খারাপ হতে পারে। সেলস প্রফেশনালে থাকা ব্যক্তিরা কখোনোই এক্সট্রা কল করে না বা এক্সট্রা মিটিং করে না, কেন করে না? কারন একটাই, শুরুতে রেজাল্ট কম আসে। সুতরাং শুরুর ৯০ দিন আপনার পরের ৯ মাসে বিশাল বড় ইমপ্যাক্ট নিয়ে আসতে পারে, কিন্তু শুরুতে রেজাল্ট কম আসার ফলে আমাদের মোটিভেশন আসে না।

নামকরা বৈজ্ঞানিক অ্যালবার্ট আইনস্টাইন (Albert Einstein) একজন বুদ্ধিমান ব্যক্তি ছিলেন। তিনি চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ (Compound interest) কে পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্য বলতেন, কেন? এবং এই কম্পাউন্ড ইন্টারেস্ট (Compound interest) বা কম্পাউন্ড ইফেক্ট (Compound effect) ঠিক কি? একটা উদাহরন দেখে নাওয়া যাক


চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ (Compound interest) কেন পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্য


আমি আপনাকে দুটি বিকল্প দিলাম, প্রথম বিকল্পটি হল, আমি আপনাকে ১ টাকা দিলাম যার মূল্য পরের এক মাস ধরে প্রত্যেক দিন দ্বিগুণ হয়ে যাবে। আর দ্বিতীয় বিকল্পটি হল আমি আপনাকে ১০ লাক্ষ টাকা দিলাম, না থাক ১ কোটী টাকা দিলাম, চলুন আরো বাড়িয়ে ১০ কোটি টাকা দিলাম, যা আমি এক্ষুনি এক্ষুনি আপনাকে দেব। অন্যদিকে আমি ১ টাকা দিলাম যার মূল্য প্রত্যেকদিন দ্বিগুণ হবে পরের একমাসের জন্য। এবার আমার প্রশ্ন হল আপনি কোন বিকল্পটি নির্বাচন করবেন?

হয়তো আপনি বিভ্রান্ত হয়ে যেতে পারেন যে ১ টাকা ও ১০ কোটি টাকা অফারের মধ্যে অন্তর কি হতে পারে? বোঝার জন্য ধরে নিন প্রথম দিন আমি ১০ কোটি টাকা রাখলাম, আর আপনাকে শুধু মাত্র ১ টাকা দিলাম। দেখা যাক ৫ দিনে পরে কি হতে পারে? ৫ দিন বাদে আমার কাছে ১০ কোটি টাকা আছে, আর আপনার কাছে ১ টাকা দ্বিগুণ হতে হতে ১৬ টাকা হয়ে যাবে। ১০ দিন বাদে আমার কাছে ১০ কোটি টাকাই আছে, কিন্তু আপনার কাছে সেটা দ্বিগুণ হতে হতে ৫১২ টাকা হয়ে যাবে। ২০ দিন বাদে আমার কাছে এখনো ১০ কোটি টাকাই আছে, কিন্তু আপনার কাছে ডবল হতে হতে সেটা ৫,২৪,২৮৮ টাকা হয়ে যাবে। এবার মন দিয়ে দেখুন, ৩১ দিন বাদে আমার কাছে সেই ১০ কোটি টাকাই আছে, কিন্তু আপনার কাছে সেটা দ্বিগুণ হতে হতে ১০৭,৩৭,৪১,৮২৪ টাকা হয়ে যাবে। একাই বলে চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ (compound effect)। যাকে কম্পাউন্ড ইন্টারেস্ট (Compound interest) বলে অ্যালবার্ট আইনস্টাইন (Albert Einstein) অষ্টম আশ্চর্য বলেছিলেন।

শুরুতে আপনার ১ টাকা কম লাগছিল, প্রথম ৫ দিন অব্ধিও কমই ছিল, ২০ দিন অব্ধিও আপনার কাছে ১ টাকা খুবই কম লাগছিল, কিন্তু ৩১ দিন বাদে বিশাল বড় রেজাল্ট নিয়ে এল। তাই আবার একি কথা বলব শুরুর ৯০ দিন আপনার পরের ৯ মাসে বিশাল বড় ইমপ্যাক্ট নিয়ে আসতে পারে। শুরুতে রেজাল্ট খুবই কম হয়, এর জন্য মানুষ প্রচেষ্টা করে না। যত বড় বড় এথলেটস (Athletes) হোক বা স্পোর্টসম্যান হোক কেউই শুরুতে রেজাল্ট পায় নি।

হতে পারে আপনার প্রতিদ্বন্দ্বীরা আপনার থেকে অনেক এগিয়ে গেছে তারা প্রথম প্রস্তাবক (first mover)। কিন্তু আপনাকে সফল হতে গেলে প্রথম প্রস্তাবক নয় ফাস্ট মুভার (fast mover) হতে হবে। তার জন্য আপনাকে প্রথম ৯০ দিন খুব ভাল ভাবে তৈরী হতে হবে, তবেই পরের ৯ মাস আপনার কাছে বিশাল বড় রেজাল্ট নিয়ে আসবে। কিন্তু ঘটনা চক্রে শুরুতে রেজাল্ট কম আসে, ফলে আমাদের মধ্যে প্রেরণা আসে না এবং আমারা ছেড়ে বেড়িয়ে যাই বা কুইট করে যাই। কিন্তু এটাই আপনার কাছে সঠিক সময় যেখানে আপনাকে খুব দ্রততম হতে হবে, প্রথম প্রস্তাবক না হয়ে ফাস্ট মুভার হতে হবে, তবেই প্রথম প্রস্তাবক কে আপনি পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারবেন।


চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ (Compound effect) এর আরেকটি সুন্দর গল্প


এক দেশে এক খুব দয়ালু রাজা ছিলেন, তিনি সব সময় তাদের প্রজাদের কিছু না কিছু দান করতেন। একদিন রাজা দাবা খেলছিলেন, তখন তার প্রজাদের মধ্যে এক পন্ডিত রাজার কাছে এসে বললেন, হে রাজন আজ আমি আপনার কাছে কিছু চাইতে এসেছি।

রাজন বললেন - বলুন পন্ডিতমশাই আপনাকে আমি কি দিয়ে সাহায্য করতে পারি?
পন্ডিতমশাই বললেন - বেশি কিছু না, আমি কিছু গমের দানা চাই।

রাজন হেসে বললেন - আমায় ক্ষমা করবেন সাধুবাবা। আপনি আমার কাছে যা কিছু চাইতে পারেন, কিন্তু শুধু কিছু গমের দানা চাইছেন কেন? আপনি আরো বড় কিছু আমার কাছে চান, যা কিছু হোক!

পন্ডিতমশাই বললেন - না না রাজন আমার শুধ কিছু গমের দানাই চাই।

রাজন বললেন - বলুন পন্ডিতমশাই কত গমের দানা আপনার চাই?

পন্ডিতমশাই বললেন - আপনার এই দাবা বোর্ডের মধ্যে যে ৬৪ টা ঘর আছে তার প্রথম ঘরে ১টা গম, পরের ঘরে ২টো, তার পরের ঘরে ৪টে, তারপরে ৮টা এই ভাবে প্রত্যেক ঘরে দ্বিগুন হতে হতে এই ৬৪ ঘরে এসে যে সংখ্যাটা দাড়াবে, সেই সংখ্যক গম আমার চাই।

রাজন বললেন - কি বলছেন পন্ডিতমশাই? আপনি আরো বড় কিছু আমার কাছে চান। এতটুকু গমতো আপনি যার তার কাছেও চাইতে পারতেন, যে কেউ আপনাকে দিয়ে দিতেন।
পন্ডিতমশাই বললেন - হে রাজন হয় আমাকে এতটুকু গম দিন না হয় আমি চললাম।

রাজন বললেন - আমায় ক্ষমা করবেন পন্ডিতমশাই, এই বলে তিনি সিপাইদের হাক দিয়ে বললেন, সিপাইগন এই পন্ডিতমশাই যতটুকু গমের দানা চাইছেন উনাকে দিয়ে দাও।

পন্ডিতমশাই বললেন - ধন্যবাদ মহারাজ।

সিপাইরা বললেন - আপনি যা হুকুম করবেন মহারাজ। এই বলে বিদায় নিল এবং ১০ মিনিট পরে দৌড়োতে দৌড়োতে ফিরে এসে বলল ত্রাহিমাম, ত্রাহিমাম রাজন আমাদের বড় অপরাধ হয়ে গেছে।

রাজন বললেন - কি হয়েছে?

সিপাইরা বললেন - পন্ডিতমশাই যত গমের দানা চাইছেন আজ অব্ধি অত গমের দানা পৃথিবীতে উৎপাদনই হয় নি।

রাজন বললেন – কি বলছেন?

সিপাইরা বললেন - হে রাজন পন্ডিতমশাই বুদ্ধিমান, উনি যত গমের দানা চাইছেন আজ অব্ধি পৃথিবীতে তা উৎপাদনই হয় নি।
রাজন বললেন - কেন কতটা গম চাইছেন উনি?

আপনি ধারনা করতে পারেন এই সংখ্যাটা কত হতে পারে? আমি ঠিক যে ভাবে বলেছি ঠিক সেই ভাবে প্রথম ঘরে ১টা, পরের ঘরে ২টো, তার পরের ঘরে ৪টে, তারপরে ৮টা এই ভাবে প্রত্যেক ঘরে দ্বিগুন করতে করতে গেলে ৬৪ তম ঘরে যে সংখ্যাটা দাড়াবে সেটা আমি লিখে দিলাম, দেখুন আপনি পড়তে পারেন কিনা? 18,446,744,073,709,551,615। তো এতটা সিংখ্যক গম পন্ডিতমশাই রাজার কাছে চেয়েছিলেন। আরো জানলে অবাক হবেন যে এই সংখ্যার এক চতুর্থাংশ সংখ্যক দানা ১০টা এভারেস্ট-কে ঢেকে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

এবার বুঝতে নিশ্চই বুঝতে পারছেন যে কেন অ্যালবার্ট আইনস্টাইন (Albert Einstein) চক্রবৃদ্ধিহারে সুদ বা কম্পাউন্ড ইন্টারেস্ট-কে (Compound interest) অষ্টম আশ্চার্জ বলেছিলেন। আর এটাও বুঝতে পারছেন যে আপনার প্রথম ৯০ দিনের কাজ, পরের ৯ মাসকে কতটা শক্তিশালী করতে পারে। সুতরাং যদি কোনো এক ভাবে আপনার সাবকনসাস মাইন্ড-এ (Subconscious Mind) এই ফর্মুলাটা স্থায়ীভাবে স্থির করতে পারেন তো আপনার সফলতা অবশ্যই আসবে।

এবার, আপনি কি চান এমন একটি ব্যাবসার করার সুযোগ? যাতে এরকমই একটি ফর্মুলা এপ্লাই করে আপনি সফলতার পথে এগিয়ে যেতে পারেন। 


সুতরাং খুব শীঘ্রই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। একবার বিশ্বাস করেই দেখুন, আপনার জীবন বদলে যেতে পারে। মনে রাখবেন আপনাকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওটাই আমাদের আসল উদ্দেশ্য।

আপনার চিন্তাভাবনার পরিবর্তন করুন, আপনার জীবন পরিবর্তন করুন।

নিজের স্বপ্নগুলির সাথে সমঝোতা বা আপস করবেন না | Don't compromise with your dreams

আপনারা যদি আমাদের কাছে আরো কিছু জানতে চান, তো আমাদের website-এ একটি form দেওয়া আছে। দয়াকরে from-টি পূর্ন করুন। সেখানে আপানদের জন্য আছে একটি বিস্ময়কর ভিডিও। ভিডিওটি অবশ্যই দেখুন। আমাদের কাছে আপনার যাবতীয় প্রশ্নের অনেক উত্তর দেওয়া আছে এই ভিডিওটিতে।

যদি আর কোন সাহায্যের দরকার হয় তো অবশ্যই ফোন করুন - Contact Us

Email: freedomstoday1@gmail.com


বিশেষ দ্রষ্টব্য:

আপনি যদি ‘ইতিবাচক গল্প’ দেখতে এবং পড়তে ভালবাসেন, আপনি visit করতে পারেন আমাদের Positive stories bangla নামে YouTube channel এবং গল্প গুলি পড়ার জন্য রয়েছে একটি Blog website

Positive stories bangla Blog Website : Positive stories bangla Blog Website : https://positivestoriesbangla.blogspot.com/

Positive stories bangla YouTube channel : https://www.youtube.com/Positivestoriesbangla

No comments: